বাণিজ্য মেলায় ৫৬ শতাংশ বেশি বিক্রি করেছে ওয়ালটন

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক।।

সদ্য সমাপ্ত ২২তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় বিশ্বমানের ফ্রিজ, টেলিভিশন, ল্যাপটপসহ প্রায় ৬০টি পণ্যের ৫’শতাধিক মডেল প্রদর্শন ও বিক্রি করেছে ওয়ালটন। এর মধ্যে ছিল শতাধিক নতুন মডেলের পণ্য। মেলায় গেলো বছরের চেয়ে ৫৬ শতাংশ বেশি টাকার পণ্য বিক্রি করেছে ওয়ালটন। প্রতিষ্ঠানটি সরকারি কোষাগারে জমা দেয় সর্বোচ্চ পরিমান ভ্যাট। যার স্বীকৃতিস্বরূপ শ্রেষ্ঠ ভ্যাটদাতার প্রথম পুরস্কার অর্জনসহ জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সম্মাননা পায় দেশীয় এই ব্র্যান্ডটি। একই সঙ্গে শ্রেষ্ঠ প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়নের স্বীকৃতিও পেয়েছে তারা।

ওয়ালটন সূত্রমতে, এবারের মেলায় ওয়ালটন প্রায় ১২ কোটি ১৬ লাখ ২৭ হাজার টাকার পণ্য বিক্রি করেছে। ২০১৬ সালের বাণিজ্য মেলায় বিক্রি করেছিল প্রায় ৭ কোটি ৮২ লাখ টাকার পণ্য। এতে করে সদ্য সমাপ্ত এই মেলায় পণ্য বিক্রিতে প্রায় ৫৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে কোম্পানিটির। এরমধ্যে ফ্রিজ বিক্রিতে প্রবৃদ্ধি ১৯৬ শতাংশেরও বেশি। এলইডি টিভিতে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১১৮ শতাংশেরও বেশি।

বিক্রিতে আশাতীত প্রবৃদ্ধি হওয়ায় গতবারের চেয়ে দ্বিগুনেরও বেশি ভ্যাট প্রদান করেছে দেশের এই ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট। গত বছরের বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন ১৭ লাখ ৫৭ হাজার ভ্যাট প্রদান করে অর্জন করেছিল সর্বোচ্চ ভ্যাটদাতার স্বীকৃতি। আর এবারের মেলায় ভ্যাট প্রদানের পরিমাণ ছিল ৩৬ লাখ ৩ হাজার ৮৯৯ টাকা। মেলার সমাপনী দিনে ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক ও বিপণন বিভাগের প্রধান সমন্বক ইভা রিজওয়ানা প্রতিষ্ঠানের পক্ষে শ্রেষ্ঠ প্যাভিলিয়ন ও সেরা ভ্যাটদাতার সম্মাণনা এবং ক্রেস্ট  গ্রহণ করেন।

এছাড়া গত রোববার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড- এনবিআর এর সম্মেলন কক্ষে বাণিজ্য মেলায় দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন গ্রুপসহ সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারী ১০ প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেয় এনবিআর। ওয়ালটনের পক্ষে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদ গ্রহণ করেন প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক (ফিন্যান্স এন্ড একাউন্টস) আবুল বাশার হাওলাদার।

ইউডি/এমএমআর

কোন মন্তব্য নেই

মতামত দিন