• বুধবার, ১৭ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৮ জুন ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ

সহজ-সরল জীবনে স্বস্তি আছে, বেঁচে থাকার জোস নেই

প্রকাশ:  ১৭ জুন ২০১৭, ২০:৫৪ | আপডেট : ১৭ জুন ২০১৭, ২১:০৯
খুজিস্তা নূর-ই নাহারিন (মুন্নি)

অনেক মানুষই বিনা কারণে নানা রকম ফোবিয়া আক্রান্ত থাকে। কেউ পানি, কেউ গাড়ি, কেউ বা আবার উচ্চতা। আমার ফোবিয়া বা ভয় হচ্ছে উচ্চতা। উঁচুতে উঠলে মাথা ঘুরে পরে যাবো মনে হয়। একবার এক এগারোতলা বিল্ডিংয়ে থাকার জন্য দেখতে গেলাম, উপড়ে উঠার পর বেলকনিতে দাঁড়িয়ে নীচে তাকিয়ে ভয়ে চিৎকার ! কেবলই মনে হচ্ছে নীচে পরে যাচ্ছি। প্যারিসের আইফেল টাওয়ার, কানাডার সিয়ারস টাওয়ার, আমেরিকা এবং মালায়শিয়ার টুইন টাওয়ারেও উঠেছি কিন্তু প্রতিবারই প্রচণ্ড ভয় কাঁদো কাঁদো অবস্থা। গ্র্যান্ড কেনিয়ানে সবার অনেক অনুরোধের পরেও কাঁচের পথ হাঁটাতে চোখ খুলিনি একটি বারের জন্যও। 

দেশে কখনোই আমি লিফট ম্যান ছাড়া একা লিফটে উঠি না, প্রচণ্ড ভয় আমায় তাড়া করে ফিরে। গত কাল রাতে কানাডায় ডাঊন টাউনে ছেলের বাসার কাছে '' Central YMCA Fitness'' এ swimming করে ফেরার পথে সেই দুর্ঘটনার শিকার হতে হল। লিফটের ভিতর আঁটকে আছি , নড়ছে না আবার খুলছেও না কিছুতেই । প্রায় ৭ মিনিট কেউ আসছেও না, ভয়ে দম আঁটকে যাচ্ছে, ভাবলাম আজই শেষ, অতএব অভ্যস্ততায় চোখ বন্ধ করে দোয়া পড়া । অবশেষে সম্বিৎ ফিরল ভাবলাম শেষ চেষ্টা করে দেখি। লিফটের ভিতর থেকে ফোন করে বললাম, ''please help me''.অবশেষে প্রায় ১০ মিনিট পর বাইরে আসা। বাইরে এসে শ্বাস নিতেই মনে হল, '' ইস কি আনন্দ'' ! আসলে মুক্ত বাতাসে শ্বাস নিয়ে সুস্থ ভাবে বেঁচে থাকতে পারাটাই জীবনের সবচেয়ে বড় পাওয়া। যতবার বিপদে পরি, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, জীবনের বাস্তবতায় চলমান ঝড়-ঝঞ্জা, বিক্ষুব্ধ বাতাসের সম্মুখীন হতে হয় ততোবার নতুন করে উপলব্ধি করি, '' জীবন কতো সুন্দর'' ! নতুন করে প্রেরণা পাই আবার তৈরি হই সম্মুখ যুদ্ধের জন্য।

সহজ- সরল যে জীবন সে জীবনে স্বস্তি আছে সুখ আছে; কিন্তু আনন্দ নেই, বেঁচে থাকার জোস নেই। বৈরী স্রোতে পথ চলতে কষ্ট আছে, প্রতিটি পদক্ষেপে পায়ে কাঁটা বেঁধার ভয় আছে; কিন্তু বিজয়ী হলে আনন্দ আর আনন্দ !

যে জীবনে অভাব নেই সে জানে না সম্পদের সুষ্ঠু ব্যাবহার, যে জীবনে সমস্যা নেই সে কি করে পাবে সমাধানের আনন্দ ! প্রতিটি জীবনে অনেক কষ্ট থাকবে, না বলা কথা থাকবে, না পাওয়া থাকবে, ভয় এবং হতাশাও থাকবে, এক ধরণের শূন্যতা থাকবে। এসব ছাড়া যে জীবন তা কোন জীবন নয়। সব দিক থেকে পরিপূর্ণতা এক ধরণের মৃত্যুরই নামান্তর।

জীবনের স্বাভাবিক চাওয়াগুলো পরিপূর্ণতা পেলে এক ধরণের অবসাদ এসে গ্রাস করে, নিজেকে অপ্রয়োজনীয় আর বেঁচে থাকাকে অর্থহীন মনে হয়। অনেকে বেঁচে থাকার কোন উদ্দেশ্য না পেয়ে ড্রাগকে আশ্রয় করে আত্মধ্বংস বা আত্মহত্যার মতো নিষ্ঠুর পথ খুঁজে ফিরে।

তাই না পাওয়া, অপূর্ণতার জন্য আর কষ্ট নয়, কাউকে দোষারোপ নয় বরং মহান আল্লাহ্‌ পাঁকের দরবারে শুকরিয়া যে আমরা কেউই পরিপূর্ণ মানুষ নই, কারণ এই অপূর্ণতাই আমাদের জীবনী শক্তি যা আমাদের অহর্নিশ চালিত করে। তাই পৃথিবীর যে সকল মানুষ যারা হরেক রকম না পাওয়া নিয়ে নিজেদের দুঃখী, অসুখী আর অপূর্ণ মনে করেন তাঁদের জন্য আমার অফুরান শুভকামনা আর ভালবাসা। পরিপূর্ণতা নয়, প্রতিকূলতায় সমস্ত প্রতিবন্ধকতা নিয়ে চলার নামই হচ্ছে জীবন। এতেই নিহিত আপনার কৃতিত্ব, সাহসিকতা আর বেঁচে থাকার গৌরব। সংগ্রামের গৌরবে সৌরভ ছড়িয়ে মহিমান্বিত আর আলোকিত করুক আপনার চারিপাশ !

লেখক: সম্পাদক পূর্বপশ্চিমবিডি.নিউজ