• বুধবার, ১৭ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৮ জুন ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ

মির্জা ফখরুলের ওপর হামলার প্রতিবাদে গাজীপুরে বিক্ষোভ

প্রকাশ:  ১৯ জুন ২০১৭, ২১:২১
গাজীপুর প্রতিনিধি ।।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ওপর হামলার প্রতিবাদে গাজীপুর জেলা বিএনপি বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

সোমবার জেলা বিএনপি সহ-সভাপতি আহাম্মদ আলী রুশদীর সভাপতিত্বে শহরের দলীয় কার্যালয়ে মিছিলপূর্ব সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। পরে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহরের রাজবাড়ী রোড প্রদক্ষিণ করে।

এসময় বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ডা. মাজহারুল আলম বলেন, সাড়াদেশে লুটপাট, ব্যাংক-শেয়ার খেকো, ভূমিখেকো, অবশেষে পাহাড় খেকোদের কারণে মাটিচাপায় শতশত প্রাণ ঝরে গেলো। তাদের অপকর্ম প্রকাশ হবার ভয়ে আজ তারা দিশাহারা। তাই, মহাসচিবের উপর এমন বাকশালী হামলা। পুলিশ, আদালত, প্রশাসন এই অপশক্তিদের বিচার না করলেও, শিগ্রিই উত্তাল জনরোষে তাদের বিচার হবে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে দেশকে বাকশালমুক্ত করা হবে।

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন- জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক সোহরাব উদ্দিন, যুগ্মসম্পাদক সাখাওয়াৎ হোসেন সবুজ, সাবেক ভিপি আশরাফ হোসেন টুলু, কাপসিয়া থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াৎ হোসেন সেলিম, সাবেক ভিপি জয়নাল আবেদীন তালুকদার, বিএনপি নেতা হুমায়ুন কবীর রাজু, আসাদুজ্জামান সোহেল, এড. মনির হোসেন, মাফিকুর রহমান সেলিম, এড. নুরুল কবীর শরীফ, ওসমান আলী, কাদির মোড়ল,ইজ্জত আলী, যুবদল নেতা তাজুল ইসলাম, এড. তৌহিদুল ইসলাম রনি, জিএস মাসুম, এড. নুরুল আলম, বাপ্পী দে, ছাত্রদল নেতা ইমরান রেজা প্রমুখ।

উল্লেখ্য, পাহাড়ধসে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন এবং ত্রাণ বিতরণ করতে রাঙামাটি যাওয়ার পথে রোববার সকালে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার ইছাখালী এলাকায় হামলার শিকার হয় বিএনপি মহাসচিবের গাড়িবহর। এ হামলায় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের পাঁচ শীর্ষ নেতা আহত হন। এসময় ভাঙচুর করা হয়েছে পাঁচটি গাড়ি। হামলার পর তারা রাঙামাটি না গিয়ে চট্টগ্রাম শহরে ফিরে যান।

হামলাকারীদের মধ্যে উপজেলা ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরাও ছিল। পরে হামলা নিন্দা জানিয়ে গতকালই দেশের সকল জেলা সদরে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

এসএম